ঢাকা ০৩:০৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
দর্শনা হল্ট রেলওয়ে পুলিশের সহযোগীতায় হারানো ব্যাগ সহ ব্যাগের মধ্যে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ফিরে পেলেন এক যাত্রী রাজশাহী জেলা শাখা স্বাচিপ সভাপতি ডা. জাহিদ ও সম্পাদক ডা. অর্ণা জামান চুয়াডাঙ্গায় রেললাইনে ফাটল ধীরগতি ট্রেন চলাচল দর্শনা হল্ট রেলওয়ে স্টেশনে বিশেষ অভিযানে সাগরদাড়ী এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি থেকে একজন পকেটমার গ্রেফতার গুলিবিদ্ধ হয়ে জীবনশঙ্কায় স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রী গাজা নিয়ে মতবিরোধ, প্রথম ইহুদি-আমেরিকান বাইডেন কর্মকর্তার পদত্যাগ শ্রম আইন সংশোধনে আইএলও’র পরামর্শ গ্রহণ নিয়ে নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ে আলোচনা হবে: আইনমন্ত্রী রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব থেকে শোইগুকে সরিয়ে দিচ্ছেন পুতিন ভয়াবহ আগুন ইসরাইল সেনাঘাঁটিতে নতুন করে চুরি হয়নি রিজার্ভ : বাংলাদেশ ব্যাংক

রাজশাহী জেলা পরিষদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:১২:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী জেলা পরিষদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২২ নভেম্বর) সকালে নিজ সভা কক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবালের সভাপতিত্বে এই মাসিক সভা ও বর্তমান জেলা পরিষদের এক বছর পূর্তি পালন করা হয়েছে। সভার শুরুতে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবালকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান রাজশাহী জেলা পরিষদের সদস্যগণ ও জেলা পরিষদ কর্মকর্তা-কর্মচারী কল্যাণ সমিতি এবং কর্মকর্তাবৃন্দ। এ সময় কেক কেটে  বছর  পূর্তি উদযাপন করা হয়। সভা সঞ্চালনা করেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মু: রেজা হাসান।

মাসিক সভায় পূর্ববর্তী সভার কার্যবিবরণী পাঠ ও দৃঢ়ীকরণ, ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের এডিপি ও রাজস্ব বরাদ্দে গৃহীত প্রকল্প বাস্তবায়ন সংক্রান্ত অগ্রগতি পর্যালোচনা। ২০২৩-২০২৪ অর্থ বছরের  প্রকল্প গ্রহণ সংক্রান্ত আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণ। এছাড়াও বিবিধ বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল বলেন, আজ বর্তমান জেলা পরিষদের এক বছর পূর্তিতে  আপনারা জানেন বিগত এক বছর  রাজশাহীর বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রেখেছি। এই এক বছরে শিক্ষা ভাতা, চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা, অসহায় পরিবারের আর্থিক সহায়তা, প্রতিবন্ধী ভাতা, কণ্যাদান আর্থিক সহায়তা, মসজিদ ও মন্দিরের নির্মাণ কাজের জন্য আর্থিক সহায়তাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে আর্থিক সহায়ত প্রদান করি। ইতিমধ্যই গত এক বছরের বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ শেষ। আবার অনেক গুলো প্রকল্পের চলমান আছে। আপনার জেনে খুশি হবেন আমরা নগরীর প্রাণ কেন্দ্রে রাজশাহী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নির্মাণ করবো। উক্ত স্থানে সম্পূন্ন এলাকা জুড়েই হবে দৃষ্টিনন্দন এই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার। আপনারা জানেন, আমি একজন শহীদ পরিবারের সন্তান। রাজশাহীতে সবচেয়ে যে পরিবারের ক্ষতি হয়েছে, সেটি আমার পরিবারের। আমার পরিবারের মোট ১৩ জন পাক হানাদার বাহিনীর হাতে জীবন দিয়েছেন। আমি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা হয়ে আল্লাহর অশেষ কৃপায় রাজশাহীর কেন্দ্রীয় শহীদ নির্মাণ কাজ সম্পূন্ন করতে পারলে নিজেকে ধন্য মনে করবো এবং সেই সাথে আমাদের জেলা পরিষদের সকল সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞ থাকবো। আপনাদের সহযোগিতা না পেলে আমি এত বড় দায়িত্ব পালন করতে পারবো না। তিনি আরো বলেন,বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার চেতনাকে সামনে রেখে রাজশাহী জেলা পরিষদের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করবো রাজশাহী‘র ৯টি উপজেলার উন্নয়ন অব্যাহত রাখবো।

মাসিক সভায় উপস্থিত ছিলেন নওহাটা পৌরসভার মেয়র হাফিজুর রহমান হাফিজ,  সদস্য-৫ ( দূগাপুর) মো: আবুল কালাম আজাদ,  সদস্য-৩ ( পবা ও সিটি কর্পোরেশন) মো: তফিকুল ইসলাম, সদস্য-৪ ( মোহনপুর) দীলিপ কুমার সরকার, সদস্য-৮ (চারঘাট) মো: জনাব আলী, সদস্য-৬ ( বাগমারা) মোঃ আবু জাফর প্রাং, সদস্য-৯ ( বাঘা) মো: মহিদুল ইসলাম, সদস্য-৭ ( পুঠিয়া) মো: আসাদুজ্জামান মাসুদ, সদস্য-৫ ( দূর্গাপুর) মো: আবুল কালাম আজাদ, সংরক্ষিত সদস্য-১ ( গোদাগাড়ী, তানোর ও পবা)  শিউলী রানী সাহা, সংরক্ষিত সদস্য-২ ( মোহনপুর, দূর্গাপুর ও বাগমারা) সুলতানা পারভীন রিনা, সংরক্ষিত সদস্য-৩ ( পুঠিয়া, চারঘাট ও বাঘা) মোসা: সাজেদা বেগম। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সহকারী প্রকৌশলী এজাজুল আলম, উপ সহকারী প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন, প্রধান সহকারী ও ভারপ্রাপ্ত হিসাব রক্ষক এস এম আল মতিন, সার্ভেয়ার আলিফ আলী সহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

রাজশাহী জেলা পরিষদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় : ০৩:১২:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী জেলা পরিষদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২২ নভেম্বর) সকালে নিজ সভা কক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবালের সভাপতিত্বে এই মাসিক সভা ও বর্তমান জেলা পরিষদের এক বছর পূর্তি পালন করা হয়েছে। সভার শুরুতে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবালকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান রাজশাহী জেলা পরিষদের সদস্যগণ ও জেলা পরিষদ কর্মকর্তা-কর্মচারী কল্যাণ সমিতি এবং কর্মকর্তাবৃন্দ। এ সময় কেক কেটে  বছর  পূর্তি উদযাপন করা হয়। সভা সঞ্চালনা করেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মু: রেজা হাসান।

মাসিক সভায় পূর্ববর্তী সভার কার্যবিবরণী পাঠ ও দৃঢ়ীকরণ, ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের এডিপি ও রাজস্ব বরাদ্দে গৃহীত প্রকল্প বাস্তবায়ন সংক্রান্ত অগ্রগতি পর্যালোচনা। ২০২৩-২০২৪ অর্থ বছরের  প্রকল্প গ্রহণ সংক্রান্ত আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণ। এছাড়াও বিবিধ বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল বলেন, আজ বর্তমান জেলা পরিষদের এক বছর পূর্তিতে  আপনারা জানেন বিগত এক বছর  রাজশাহীর বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রেখেছি। এই এক বছরে শিক্ষা ভাতা, চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা, অসহায় পরিবারের আর্থিক সহায়তা, প্রতিবন্ধী ভাতা, কণ্যাদান আর্থিক সহায়তা, মসজিদ ও মন্দিরের নির্মাণ কাজের জন্য আর্থিক সহায়তাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে আর্থিক সহায়ত প্রদান করি। ইতিমধ্যই গত এক বছরের বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ শেষ। আবার অনেক গুলো প্রকল্পের চলমান আছে। আপনার জেনে খুশি হবেন আমরা নগরীর প্রাণ কেন্দ্রে রাজশাহী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নির্মাণ করবো। উক্ত স্থানে সম্পূন্ন এলাকা জুড়েই হবে দৃষ্টিনন্দন এই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার। আপনারা জানেন, আমি একজন শহীদ পরিবারের সন্তান। রাজশাহীতে সবচেয়ে যে পরিবারের ক্ষতি হয়েছে, সেটি আমার পরিবারের। আমার পরিবারের মোট ১৩ জন পাক হানাদার বাহিনীর হাতে জীবন দিয়েছেন। আমি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা হয়ে আল্লাহর অশেষ কৃপায় রাজশাহীর কেন্দ্রীয় শহীদ নির্মাণ কাজ সম্পূন্ন করতে পারলে নিজেকে ধন্য মনে করবো এবং সেই সাথে আমাদের জেলা পরিষদের সকল সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞ থাকবো। আপনাদের সহযোগিতা না পেলে আমি এত বড় দায়িত্ব পালন করতে পারবো না। তিনি আরো বলেন,বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার চেতনাকে সামনে রেখে রাজশাহী জেলা পরিষদের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করবো রাজশাহী‘র ৯টি উপজেলার উন্নয়ন অব্যাহত রাখবো।

মাসিক সভায় উপস্থিত ছিলেন নওহাটা পৌরসভার মেয়র হাফিজুর রহমান হাফিজ,  সদস্য-৫ ( দূগাপুর) মো: আবুল কালাম আজাদ,  সদস্য-৩ ( পবা ও সিটি কর্পোরেশন) মো: তফিকুল ইসলাম, সদস্য-৪ ( মোহনপুর) দীলিপ কুমার সরকার, সদস্য-৮ (চারঘাট) মো: জনাব আলী, সদস্য-৬ ( বাগমারা) মোঃ আবু জাফর প্রাং, সদস্য-৯ ( বাঘা) মো: মহিদুল ইসলাম, সদস্য-৭ ( পুঠিয়া) মো: আসাদুজ্জামান মাসুদ, সদস্য-৫ ( দূর্গাপুর) মো: আবুল কালাম আজাদ, সংরক্ষিত সদস্য-১ ( গোদাগাড়ী, তানোর ও পবা)  শিউলী রানী সাহা, সংরক্ষিত সদস্য-২ ( মোহনপুর, দূর্গাপুর ও বাগমারা) সুলতানা পারভীন রিনা, সংরক্ষিত সদস্য-৩ ( পুঠিয়া, চারঘাট ও বাঘা) মোসা: সাজেদা বেগম। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সহকারী প্রকৌশলী এজাজুল আলম, উপ সহকারী প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন, প্রধান সহকারী ও ভারপ্রাপ্ত হিসাব রক্ষক এস এম আল মতিন, সার্ভেয়ার আলিফ আলী সহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।