ঢাকা ০৩:০৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
দর্শনা হল্ট রেলওয়ে পুলিশের সহযোগীতায় হারানো ব্যাগ সহ ব্যাগের মধ্যে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ফিরে পেলেন এক যাত্রী রাজশাহী জেলা শাখা স্বাচিপ সভাপতি ডা. জাহিদ ও সম্পাদক ডা. অর্ণা জামান চুয়াডাঙ্গায় রেললাইনে ফাটল ধীরগতি ট্রেন চলাচল দর্শনা হল্ট রেলওয়ে স্টেশনে বিশেষ অভিযানে সাগরদাড়ী এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি থেকে একজন পকেটমার গ্রেফতার গুলিবিদ্ধ হয়ে জীবনশঙ্কায় স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রী গাজা নিয়ে মতবিরোধ, প্রথম ইহুদি-আমেরিকান বাইডেন কর্মকর্তার পদত্যাগ শ্রম আইন সংশোধনে আইএলও’র পরামর্শ গ্রহণ নিয়ে নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ে আলোচনা হবে: আইনমন্ত্রী রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব থেকে শোইগুকে সরিয়ে দিচ্ছেন পুতিন ভয়াবহ আগুন ইসরাইল সেনাঘাঁটিতে নতুন করে চুরি হয়নি রিজার্ভ : বাংলাদেশ ব্যাংক

গুলিবিদ্ধ হয়ে জীবনশঙ্কায় স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:০৪:৪২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪

বন্দুকধারীর হামলায় স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রী রবার্ট ফিকো গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। গতকাল বুধবার দেশটির হ্যান্ডলোভা শহরে একটি সরকারি বৈঠক থেকে বেরিয়ে হামলার শিকার হন তিনি। দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী হত্যাচেষ্টার শিকার হয়েছেন। তাঁকে একাধিকবার গুলি করা হয়েছে। তাঁর অবস্থা গুরুতর। গতকাল রাত ১২টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছিল।

ঘটনাস্থল থেকে সন্দেহভাজন বন্দুকধারীকে পুলিশ আটক করেছে বলে স্লোভাকিয়ার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট জুজানা কাপুতোভা জানিয়েছেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘এই ভয়াবহ ও জঘন্য হামলায় আমি ও আমরা সবাই মর্মাহত।’

এ ঘটনার ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা গুলিবিদ্ধ ফিকোকে তুলে নিয়ে একটি কালো গাড়িতে ওঠাচ্ছেন। পরে গাড়িটি দ্রুতগতিতে চলে যায়। অন্যদিকে ঘটনাস্থলে একজনকে হাতকড়া পরায় পুলিশ।
গত সেপ্টেম্বরে স্লোভাকিয়ায় জাতীয় নির্বাচনে জয় পায় ফিকোর দল স্মের–এসডি। এর মধ্য দিয়ে চতুর্থবারের মতো দেশটির প্রধানমন্ত্রী হন বর্ষীয়ান এই রাজনীতিক। এ দফায় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তাঁর প্রথম কয়েক মাস রাজনৈতিকভাবে বেশ বিতর্কের জন্ম দেয়। জানুয়ারিতে তিনি ইউক্রেনে সামরিক সহায়তা বন্ধ করে দেন। এ ছাড়া তিনি রাশিয়ার ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞার বিরোধিতা করে আসছিলেন। ভবিষ্যতে ইউক্রেনকে ন্যাটোর সদস্য পদের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হলে তাতে বিরোধিতা করবেন বলেও ঘোষণা দিয়ে আসছিলেন তিনি। রবার্ট ফিকোর ক্রমে মস্কোপন্থী অবস্থানের সমালোচনা করে আসছিল পশ্চিমারা।

রবার্ট ফিকোকে গুলিবর্ষণের ঘটনায় সন্দেহভাজন কারও নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ। তবে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে তাঁকে ৭১ বছর বয়সী একজন লেখক হিসেবে পরিচয় দেওয়া হয়েছে। সন্দেহভাজন ওই লেখকের ছেলে স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘বাবা কী চিন্তা করছিলেন, তিনি কী পরিকল্পনা করেছিলেন এবং কেন এটা ঘটল, সেসব বিষয়ে সত্যিকারে আমার কোনো ধারণা নেই।’

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

গুলিবিদ্ধ হয়ে জীবনশঙ্কায় স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৩:০৪:৪২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪

বন্দুকধারীর হামলায় স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রী রবার্ট ফিকো গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। গতকাল বুধবার দেশটির হ্যান্ডলোভা শহরে একটি সরকারি বৈঠক থেকে বেরিয়ে হামলার শিকার হন তিনি। দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী হত্যাচেষ্টার শিকার হয়েছেন। তাঁকে একাধিকবার গুলি করা হয়েছে। তাঁর অবস্থা গুরুতর। গতকাল রাত ১২টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছিল।

ঘটনাস্থল থেকে সন্দেহভাজন বন্দুকধারীকে পুলিশ আটক করেছে বলে স্লোভাকিয়ার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট জুজানা কাপুতোভা জানিয়েছেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘এই ভয়াবহ ও জঘন্য হামলায় আমি ও আমরা সবাই মর্মাহত।’

এ ঘটনার ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা গুলিবিদ্ধ ফিকোকে তুলে নিয়ে একটি কালো গাড়িতে ওঠাচ্ছেন। পরে গাড়িটি দ্রুতগতিতে চলে যায়। অন্যদিকে ঘটনাস্থলে একজনকে হাতকড়া পরায় পুলিশ।
গত সেপ্টেম্বরে স্লোভাকিয়ায় জাতীয় নির্বাচনে জয় পায় ফিকোর দল স্মের–এসডি। এর মধ্য দিয়ে চতুর্থবারের মতো দেশটির প্রধানমন্ত্রী হন বর্ষীয়ান এই রাজনীতিক। এ দফায় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তাঁর প্রথম কয়েক মাস রাজনৈতিকভাবে বেশ বিতর্কের জন্ম দেয়। জানুয়ারিতে তিনি ইউক্রেনে সামরিক সহায়তা বন্ধ করে দেন। এ ছাড়া তিনি রাশিয়ার ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞার বিরোধিতা করে আসছিলেন। ভবিষ্যতে ইউক্রেনকে ন্যাটোর সদস্য পদের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হলে তাতে বিরোধিতা করবেন বলেও ঘোষণা দিয়ে আসছিলেন তিনি। রবার্ট ফিকোর ক্রমে মস্কোপন্থী অবস্থানের সমালোচনা করে আসছিল পশ্চিমারা।

রবার্ট ফিকোকে গুলিবর্ষণের ঘটনায় সন্দেহভাজন কারও নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ। তবে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে তাঁকে ৭১ বছর বয়সী একজন লেখক হিসেবে পরিচয় দেওয়া হয়েছে। সন্দেহভাজন ওই লেখকের ছেলে স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘বাবা কী চিন্তা করছিলেন, তিনি কী পরিকল্পনা করেছিলেন এবং কেন এটা ঘটল, সেসব বিষয়ে সত্যিকারে আমার কোনো ধারণা নেই।’